ভাষা আন্দোলন-ইতিহাস ও তাৎপর্য 
আবদুল মতিন, আহমদ রফিক
সাহিত্য প্রকাশ


বায়ান্নর ভাষা আন্দোলনের সঙ্গে আবদুল মতিনের সম্পর্ক এতই নিবিড় যে 'ভাষা মতিন' হিসেবে তিনি পরিচিতি অর্জন করেছিলেন। আন্দোলনের কাণ্ডারী যে রাষ্ট্রভাষা সংগ্রাম পরিষদ তিনি ছিলেন তার আহ্বায়ক। আর ঢাকা মেডিকেল কলেজের ছাত্র , লেখক ও ভাবুক আহমদ রফিক বিপুলভাবে সক্রিয় ছিলেন আন্দোলনের নেপথ্যে। চিন্তা ও দৃষ্টিভঙ্গির নৈকট্য থেকে ভাষা আন্দোলনের দুই কুশীলব আন্দোলনের ইতিহাস ও তাৎপর্য বিশ্লেষণ করে প্রণয়ন করেছেন গুরুত্ববহ গ্রন্থ। এই বইটিতে তুলে ধরা আছে আটচল্লিশের আন্দোলন: সাফল্য ও ব্যর্থতা আটচল্লিশ থেকে একান্ন :আন্দোলনের প্রস্তুতি একুশে ফেব্রুয়ারি নরকীয় দিনের বর্ণনা।তাছারাও তুলে ধরা আছে ভাষা আন্দোলনের পরের কিছু কথা কিছু ঘটনা।অবরোধ বিক্ষোভ আন্দোলন আর হত্যাযজ্ঞের নারকীয় বর্ণনা করেছেন লেখক।য়াসলে বইটি পড়লে বুঝতে পারা যায় তখন সময়টা কত কঠিন ছিল।ঘটনাবলী এত সুন্দর করে বর্ণনা করেছেন যেখানে ফুটে উঠেছে কঠোরতা আত্মপ্রত্যয়তা আর নির্মমতা।অইটির শেষাংশে ঊনিশততেপ্পান্ন ্থেকে ছাপ্পান্ন সাল পর্যন্ত ঘটে যাওয়া অনেকগুলো ঘটনা লেখক তুলে ধরেছেন।আমাদের জাতীয় জীবনে ভাষা আন্দোলন তুলনারহিত এক ঘটনা, আর সেই তাৎপর্যময় ঘটনার ধারাক্রম ও বিকাশ স্বচ্ছন্দভাবে মেলে ধরে ব্যতিক্রমী এক বই উপহার দিয়েছেন লেখকদ্বয়, ভাষা আন্দোলনের সঙ্গে পূর্বাপর যাঁদের সম্পর্ক অতি নিবিড়। ভাষা আন্দোলনের ঘটনাক্রম নিয়ে অনেক বিভ্রান্তি যেমন দূর করবে এই গ্রন্থ, তেমনি আন্দোলনের বিপুল তাৎপর্য অনুধাবনে হবে বিশেষ সহায়ক।